Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৪ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

আর নয় শিশুশ্রম

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০২২, ১২:০২ এএম

চায়ের দোকান কিংবা হোটেল অথবা কাপড়ের দোকান বা বাসের হেলপার, প্রায় সবখানেই শিশুদের কাজ করতে দেখা যায়। যেই বয়সে স্কুল ড্রেস পরে, ব্যাগ কাঁধে নিয়ে স্কুলে যাবার কথা, সেই বয়সে পরিবারের চাহিদা মেটাতে করতে হচ্ছে কাজ! তাদের করতে হচ্ছে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ; যেমন, ইলেকট্রিক, ওয়েলডিং, ড্রাইভিং ও হেলপারের কাজ করতে দেখা যায় শিশুদের। শিশুদের দিয়ে কাজ করানো আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। আর ঝুঁকিপূর্ণ কাজ তো শিশুদের শারিরীক গঠনের সাথেই যায় না। এরপরও অনেক ইট ভাটা ও গাড়ির গ্যারেজ আছে, যেখানে শিশুদের দিয়ে কাজ করানো হয়। কারণ, কম বেতন দিয়ে, আবার অনেকক্ষেত্রে বেতন বা মজুরি না দিয়েই শিশুদের কাজ শেখানোর নাম করে কাজে লাগানো হয়। যা সম্পূর্ণ নেতিবাচক ও অমানবিক। প্রাপ্তবয়স্ক হবার আগে শিশুদের দিয়ে যেকোনো ধরনের কাজ করানো থেকে বিরত থাকুন। শিশুশ্রম প্রতিরোধে এগিয়ে আসুন। নিজে সচেতন হোন ও অন্যকে সচেতন করুন।

ইমরান খান রাজ
শিক্ষার্থী, শেখ বোরহানউদ্দিন পোস্ট গ্রাজুয়েট কলেজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন