Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

নোয়াখালীতে মাটিতে পুঁতে রাখা সিএনজি চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

নোয়াখালী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৪:৫৫ পিএম

নোয়াখালীর সদর উপজেলার পূর্ব চরমটুয়া ইউনিয়নের একটি সয়াবিন ক্ষেত থেকে আবদুল হাকিম (৩৫) নামের এক সিএনজি চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দূর্বৃত্তরা ওই সিএনজি চালককে গলা কেটে হত্যার পর সয়াবিন ক্ষেতে নিয়ে মাটি চাপা দিয়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা করছে পুলিশ, তবে তৎক্ষনাত এ হত্যাকান্ডের কারণ জানতে পারেনি পুলিশ।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পশ্চিম চরমটুয়া গ্রামের সফিগঞ্জ বাজারের পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত আবদুল হাকিম আন্ডারচর ইউনিয়নের পশ্চিম মাইজচরা গ্রামের ইব্রাহিম হোসেন রাজা মিয়ার ছেলে। সে পেশায় একজন সিএনজি চালক ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে সফিগঞ্জ বাজারের পাশ^বর্তী সয়াবিন ক্ষেতে কাজ করছিলো কৃষকরা। ওই ক্ষেতের মধ্যে তাজা রক্তের দাগ দেখতে পেয়ে রক্ত দেখতে দেখতে সামনের দিকে এগিয়ে যায় তারা। ক্ষেতের এক পাশে মাটি খুঁড়ে গর্ত করে তার ভেতর কিছু একটা চাপা দেওয়া হয়েছে বুঝতে পেরে আশপাশের লোকজনকে ডেকে আনে ওই কৃষকরা। পরবর্তীতে বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের জানালে তারা এসে মাটি সরিয়ে ভেতরে একটি রক্তাক্ত লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সিএনজি চালক আবদুল হাকিম নিজের পরিবারের লোকজনের সাথে মাইজদীতে থাকতেন। গতরাতে মাইজদী বাসায় ফিরবে না বলে সদস্যদের জানিয়ে বিকেলে বাসা থেকে বের হয়ে যায় হাকিম। ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে, কে বা কেনো তাকে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে, তার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ