Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

ইবি সাদা দলের মানববন্ধন

ইবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২:১১ পিএম

ফুলপরির উপর যে নির্যাতন করা হয়েছে তা আইয়ামে জাহেলিয়াতকেও হার মানায়। নির্যাতিতা ছাত্রীর নির্যাতন প্রতিরোধ করতে প্রশাসন সম্পূর্ণরুপে ব্যর্থ হয়েছে। ব্যর্থতার দায় এ প্রশাসনকে বহন করতে হবে।

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১ টায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) অনুষদ ভবনের সামনে সাদা দল এবং জাতীয়তাবাদী কর্মকর্তা ও কর্মচারী ফোরামের আয়োজিত মানববন্ধনে দলের আহবায়ক প্রফেসর ড. এ কে এম মতিনুর রহমান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করেছিলাম যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন একটি তড়িৎ সিদ্ধান্ত নিবেন ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় নিয়ে আসবেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় ঘটনার ১২দিন পেরোলেও বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট নয় এমন এক ব্যক্তি হাইকোর্টে রিটের পর তদন্ত কমিটি গঠনের পর এ প্রশাসন একটু নড়েচড়ে বসে। এছাড়া একজন জেলা প্রশাসক এরকম ঘটনার তদারকি করছেন তা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অপমানজনক। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ঘটনায় জড়িত সবাইকে জনসম্মুখে প্রকাশ করবেন এবং শুধু হল থেকে নয় বিশ্বিবদ্যালয় থেকেও তাদের বহিঃষ্কার করবেন।

তিনি আরও বলেন, সে যেই হোক না কেন এর শাস্তি যেন একটা মাইলফলক হয়। সঠিক তদন্ত না হলে এবং এরকম ঘটনা আবারো ঘটে তবে দলমত নির্বিশেষে শিক্ষক কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীসহ সকলকে নিয়ে শিক্ষার্থীদের স্বার্থে আমরা বিশাল এক কর্মসূচী ঘোষণা করতে বাধ্য হবো।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সাদা দলের যুগ্ম আহবায়ক প্রফেসর মোহাম্মদ সেলিম ও প্রফেসর ড. এম এম শরিফুল বারী, উপদেষ্টা প্রফেসর ড. মুজাহিদুর রহমান এবং শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ড. মোস্তাফিজুর রহমান। এছাড়া জাতীয়তাবাদী কর্মকর্তা ফোরামের সভাপতি আব্দুল মঈদ বাবুল, সাধারণ সম্পাদক ইয়ারুল ইসলাম ও কর্মচারী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলামসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানববন্ধন

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ