Inqilab Logo

শুক্রবার , ৯ জুন ২০২৩, ২৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪৪ হিজরী

কাশ্মির সফরে গিয়ে ভারতের তীব্র সমালোচনা করেন পাকিস্তানের নতুন সেনাপ্রধান

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:০১ এএম

পাকিস্তানের নবনিযুক্ত সেনাপ্রধান জেনারেল অসিম মুনির কাশ্মির সফরে গিয়ে বলেছেন, আক্রমণ হলে সেনাবাহিনী দেশকে রক্ষা করতে প্রস্তুত রয়েছে। এ অঞ্চলকে বিভক্তকারী লাইন অব কন্ট্রোল (এলওসি) পরিদর্শন করার সময় তিনি এমন মন্তব্য করেন। এ সময় তিনি ভারতের তীব্র সমালোচনা করেন।

আল-জাজিরার প্রতিবেদন অনুসারে জানা গেছে যে ‘শনিবার লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসিম মুনির বলেছেন, আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই যে পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনী সবসময়ই (যুদ্ধ ও শত্রুর আক্রমণ রুখতে) প্রস্তুত। আমাদের মাতৃভূমির প্রতি ইঞ্চি রক্ষা করতে তারা প্রস্তুত। যদি আমাদের ওপর যুদ্ধ চাপিয়ে দেওয়া হয়, তবে শত্রুর বিরুদ্ধে পাল্টা হামলা করতেও পাকিস্তানের সেনাবাহিনী সক্ষম।’

দেশটির সেনাবাহিনীর মিডিয়া উইং দ্বারা প্রকাশিত একটি বিবৃতি অনুযায়ী এসব তথ্য বলে জানা গেছে। মুনির আরও বলেছেন, ‘ভারত কখনই তার ঘৃণ্য পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হবে না।’

এ বিষয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে মন্তব্য করতে বলা হলে তারা তাৎক্ষণিকভাবে কোনো বিবৃতি দেয়নি।

পাকিস্তানের শক্তিশালী সামরিক বাহিনীর দায়িত্ব নেওয়ার কয়েক দিন পর মুনির কাশ্মির সফর করেন।

এর আগে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং অক্টোবরের শেষের দিকে বলেছিলেন যে নয়াদিল্লি পাকিস্তানের আধা-স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল গিলগিট-বালতিস্তান দখলের জন্য প্রস্তুত। ভারত বলছে, গিলগিট-বালতিস্তান তাদের (কাশ্মির প্রদেশের) অংশ এবং পাকিস্তান অবৈধভাবে এটা দখল করেছে।

এরপর পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ বলেছে, রাজনাথ সিংয়ের এ বিবৃতিটি হাস্যকর। এটা প্রতিবেশী দেশের (পাকিস্তান) প্রতি ভারতের আগ্রাসী ও সম্প্রসারণবাদী মানসিকতা। এ বিবৃতির মাধ্যমে শত্রুতা প্রদর্শন করা হচ্ছে।

দক্ষিণ এশিয়ার পারমাণবিক শক্তিধর দেশ ভারত ও পাকিস্তান কাশ্মিরের পুরোটাই দাবি করে থাকে। কিন্তু, তারা এ অঞ্চলের কিছু অংশ শাসন করে। কাশ্মির নিয়ে তারা তিনটি যুদ্ধ করেছে। সূত্র : আল-জাজিরা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান-ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ