Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

গণতন্ত্র সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান শ্রীলঙ্কার নীচে

ইআইইউ’র ‘গণতন্ত্র সূচক ২০২২’ প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১২:০০ এএম

বিশ্বে গণতন্ত্র সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ৭৩তম। বাংলাদেশের স্কোর ৫ দশমিক ৯৯। সবার শীর্ষে আছে নরওয়ে। দেশটির স্কোর ৯ দশমিক ৮১। দ্বিতীয় অবস্থানে ৯ দশমিক ৬১ স্কোর নিয়ে আছে নিউজিল্যান্ড, তৃতীয় অবস্থানে ৯ দশমিক ৫২ স্কোর নিয়ে আছে আইসল্যান্ড। সুইডেন ও ফিনল্যান্ড যথাক্রমে ৯ দশমিক ৩৯ ও ৯ দশমিক ২৯ স্কোর নিয়ে চতুর্থ ও পঞ্চম অবস্থানে আছে। যুক্তরাজ্যের লন্ডনভিত্তিক দ্য ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (ইআইইউ) গত বৃহস্পতিবার ‘গণতন্ত্র সূচক ২০২২’ প্রকাশ করেছে। ১৬৭টি দেশ ও অঞ্চল নিয়ে এই সূচক তৈরি করা হয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ৭ দশমিক ০৪ স্কোর নিয়ে সবার ওপরে আছে ভারত। দ্বিতীয় অবস্থানে আছে শ্রীলঙ্কা। দেশটির স্কোর ৬ দশমিক ৪৭। বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়। চতুর্থ অবস্থানে ভুটান, পঞ্চম অবস্থানে নেপাল ও ষষ্ঠ অবস্থানে আছে পাকিস্তান। ২০২১ ও ২০২০ সালে ৫ দশমিক ৯৯ স্কোর নিয়ে বাংলাদেশ বিশ্বে যথাক্রমে ৭৫ ও ৭৬তম অবস্থানে ছিল।
এবার ৫টি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে দেশগুলোর গণতন্ত্রের সূচক মূল্যায়ন করা হয়েছে। সেগুলো হলো, নির্বাচনী প্রক্রিয়া ও বহুত্ববাদ, সরকারের কার্যকারিতা, রাজনৈতিক অংশগ্রহণ, রাজনৈতিক সংস্কৃতি ও নাগরিক স্বাধীনতা। সূচকে দেশ ও অঞ্চলগুলোকে ৪ ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। পূর্ণ গণতন্ত্র, ত্রæটিপূর্ণ গণতন্ত্র, হাইব্রিড শাসনব্যবস্থা ও কর্তৃত্ববাদী শাসনব্যবস্থা।

এবারের সূচকে পূর্ণ গণতন্ত্র বিভাগে রয়েছে ২৪টি দেশ। ত্রæটিপূর্ণ গণতন্ত্র বিভাগে ৪৮টি, হাইব্রিড শাসনব্যবস্থা বিভাগে ৩৬টি এবং কর্তৃত্ববাদী শাসনব্যবস্থা বিভাগে ৫৯টি দেশ অবস্থান করছে। বাংলাদেশকে হাইব্রিড শাসনব্যবস্থা বিভাগে রাখা হয়েছে।

গত কয়েকবারের মতো এবারও হাইব্রিড শাসনব্যবস্থা বিভাগে রয়েছে বাংলাদেশ। ১০-এর মধ্যে যেসব দেশের স্কোর ৪ থেকে ৬-এর মধ্যে, তারাই এই বিভাগে রয়েছে। এই বিভাগে সবার ওপরে বাংলাদেশ। সবার নিচে মৌরিতানিয়া। সূচকে দেশটির অবস্থান ১০৮তম, স্কোর ৪ দশমিক শ‚ন্য ৩।এই বিভাগের অন্য দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে ভুটান (৮৪তম), ইউক্রেন (৮৭তম), উগান্ডা (৯৯তম), নেপাল (১০১তম) ও পাকিস্তান (১০৭তম)।
হাইব্রিড শাসনব্যবস্থা বলতে ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট এমন ব্যবস্থাকে বোঝায়, যেখানে প্রায়ই অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনব্যবস্থা বাধাগ্রস্ত হয়। এ শাসনব্যবস্থায় বিরোধী দল ও বিরোধী প্রার্থীদের ওপর সরকারের নিয়মিত চাপ থাকে। এই বিভাগে থাকা দেশগুলোর বিচারব্যবস্থা স্বাধীন নয়। সাংবাদিকদের হয়রানি ও চাপ দেওয়া হয়। দুর্নীতির ব্যাপক বিস্তার, দুর্বল আইনের শাসন, দুর্বল নাগরিক সমাজ এই ধরনের শাসনব্যবস্থার বৈশিষ্ট্য।

এবারের সূচকে ত্রæটিপূর্ণ গণতন্ত্র বিভাগে থাকা দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র (৩০তম), মালয়েশিয়া (৪০তম), ভারত (৪৬তম), ইন্দোনেশিয়া (৫৪তম), শ্রীলঙ্কা (৬০তম) ও সিঙ্গাপুর (৭০তম) রয়েছে।
গণতন্ত্র সূচকে সবার নিচে রয়েছে আফগানিস্তান (১৬৭তম)। কর্তৃত্ববাদী শাসনব্যবস্থা বিভাগের এই দেশের স্কোর শ‚ন্য দশমিক ৩২। এ ছাড়া মিয়ানমার (১৬৬তম), উত্তর কোরিয়া (১৬৫তম), মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র (১৬৪তম), সিরিয়া (১৬৩তম), চীন (১৫৬তম), ইয়েমেন (১৫৫তম), ইরান (১৫৪তম), সৌদি আরব (১৫০তম) ও রাশিয়া (১৪৬তম) এই বিভাগে রয়েছে।



 

Show all comments
  • Md Parves Hossain ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০০ এএম says : 0
    আমি ব্যাক্তিগত ভাবে গনতন্ত্রে বিশ্বাস করি না বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে, যে এক প্যাকেট সিগারেটের জন্য ভোট দিয়ে দেয় তাদের জন্য গনতন্ত্র না। এটাই ঠিক আছে তবে অত্যাচার, গুম, খুন, ব্যাংক ডাকাতি, খমতার অপব্যবহার,বিচার ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ এগুলো বন্ধ করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Sohel vlog ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০০ এএম says : 0
    মানুষের খাওয়া নাই এই উন্নতি আমরা ভর্তা করবো
    Total Reply(0) Reply
  • Sohel vlog ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০০ এএম says : 0
    মানুষের খাওয়া নাই এই উন্নতি আমরা ভর্তা করবো
    Total Reply(0) Reply
  • Shah Minhaz ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০২ এএম says : 0
    হা অপকটে স্বীকারুক্তি দিচ্ছি দেশে যতেষ্ট পরিমান উন্নয়ন হচ্ছে। তবে ন্যায় বিচার ভুলন্টিত হচ্ছে! ক্ষমতার অপব্যবহার করছে অনেকে! দ্রব্য মূল্যের দাম যেই হারে বাড়ছে, মধ্যবিত্ব ও নিন্মবিত্ব মানুষের অনেক কষ্টে জিবন চলছে! সরকারকে সেই দিখে নজর দেওয়ার অনুরুদ জানাচ্ছি।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Parves Hossain ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০০ এএম says : 0
    আমি ব্যাক্তিগত ভাবে গনতন্ত্রে বিশ্বাস করি না বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে, যে এক প্যাকেট সিগারেটের জন্য ভোট দিয়ে দেয় তাদের জন্য গনতন্ত্র না। এটাই ঠিক আছে তবে অত্যাচার, গুম, খুন, ব্যাংক ডাকাতি, খমতার অপব্যবহার,বিচার ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ এগুলো বন্ধ করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Arafat ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:০১ এএম says : 0
    দেশে গনতন্ত্র নাই এটা যেমন সত্য দেশ উন্নত হচ্ছে এটা ও তেমনি সত্য। এতে উন্নয়ন হওয়ার পরে ও মানুষের ভোটধিকার ফিরে দিতে ভয় কোথাই?
    Total Reply(0) Reply
  • Abdullah bikram ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১০:২০ এএম says : 0
    গুম, খুন, ব্যাংক ডাকাতি, খমতার অপব্যবহার,বিচার ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ এগুলো বন্ধ করতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • B M Khan Nipu ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৭:৫৪ এএম says : 0
    Is this dictatorial illegitimate government carrying out this massive exploitation as part of a plan to economically exhaust all people of country? The ruling illegitimate government of this country charges fifteen percent VAT on every one hundred taka of people's income, even if that annual income of people declared in budget is exempt from income tax, if this person's source of income is profit of deposits kept in banks.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গণতন্ত্র মঞ্চ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ