Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

কালকিনিতে যুবককে কুপিয়ে জখম কাউন্সিলরসহ ৯জনের নামে থানায় অভিযোগ

মাদারীপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২৩, ৪:৫২ পিএম

পূর্ব শত্রæতার জের ধরে মাদারীপুরের কালকিনিতে মো. সাহেদ হোসেন-(৩২) নামে এক যুবককে কুপিয়ে জখম করে ফেলে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ওই যুবককে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে এই ঘটনায় আজ বুধবার সকালে একজন কাউন্সিলরসহ নয় জনকে আসামী করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে আহত ওই যুবক।

ভূক্তভোগী পরিবার ও থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, পৌর এলাকার চরফতে বাহাদুর গ্রামের মো. আব্দুল খালেকের ছেলে মো. সাহেদ হোসেনের সাথে ৩নং ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেনের দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সাহেদ হোসেনকে একই গ্রামের মাহাবুল টেডনের বাড়ির সামনে বসে পৌর কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও আবু বক্কর সরদারসহ বেশ কয়েকজন মিলে দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে আহত সাহেদ হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এদিকে এই ঘটনায় পৌর কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও আবু বক্কর সরদারসহ নয় জনকে আসামী করে আহত সাহেদ হোসেন বাদী হয়ে কালকিনি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
আহত সাহেদ হোসেন বলেন, কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও আবু বক্কর সরদারসহ বেশ কয়েকজন মিলে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার উপরে হামলা চালিয়েছে। তাই আমি তাদের নামে থানায় মামলা করবো।
অভিযুক্ত কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বলেন, কিছুদিন পূর্বে আমার ছেলের উপর বিএনপির লোকজন নিয়ে হামলা চালিয়েছিল সাহেদ।
এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. শামীম হোসেন বলেন, হামলার ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ