Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

গুপ্তচরবৃত্তি করতে ফিলিস্তিন সীমান্তে গরু পাঠাচ্ছে ইসরাইল!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ জানুয়ারি, ২০২৩, ৩:০৬ পিএম

ফিলিস্তিনি সেনার উপর নজরদারি চালাতে এবার গরুদের ব্যবহার করছে ইসরাইল। জানা গিয়েছে, চর হিসাবে ফিলিস্তিনের সীমান্ত এলাকায় গরুর পাল পাঠানো হচ্ছে। স্থানীয়দের অনুমান, বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়েই সীমান্ত পার করে ফিলিস্তিনের মাটিতে গরুগুলিকে পাঠান হয়েছে। ফিলিস্তিনের সংবাদপত্রের সূত্রেই এই খবর জানা গিয়েছে। তবে দুই দেশের তরফে সরকারিভাবে এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।

ঠিক কী ঘটছে ফিলিস্তিন সীমান্তে? স্থানীয় গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, একসঙ্গে একাধিক গরু গ্রামে ঢুকে আসছে। তাদের গলায় বেশ বড় ঘণ্টা বাঁধা থাকছে। তবে সেই ঘণ্টা আসলে রেকর্ড করার যন্ত্র। নানা জায়গায় ঘুরে সেই অঞ্চলের যাবতীয় কথোপকথন রেকর্ড করা হচ্ছে। কিছু গরুর শরীরে গোপন ক্যামেরাও বসিয়ে দিচ্ছে ইসরাইল প্রশাসন। ফলে সীমান্ত এলাকায় যা ঘটছে, গরুর মাধ্যমে সমস্ত তথ্যই চলে যাচ্ছে ইসরাইলের হাতে। এক কথায়, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চরের মতোই কাজ করছে এই গরুর পাল।

শুধুই চরবৃত্তি নয়, ফিলিস্তিনের সাধারণ মানুষের ক্ষতি করছে এই গরুগুলি। স্থানীয়দের অভিযোগ, গরুর পাল ক্ষেতে ঢুকে ফসল নষ্ট করে দিচ্ছে। এমনকি, চাষের জমি লক্ষ্য করেই গরুদের পাঠাচ্ছে ইসরাইল, এমন অভিযোগও করেছেন ফিলিস্তিনের সীমান্ত এলাকার গ্রামের বাসিন্দারা। প্রসঙ্গত, আগেও প্রাণীদের ব্যবহার করে ফিলিস্তিনে সাধারণ মানুষের ক্ষতি করার অভিযোগ উঠেছিল ইসরাইলের বিরুদ্ধে। বিষাক্ত ইঁদুর ছেড়ে দিয়ে তাণ্ডব চালানোর ঘটনা শোনা গিয়েছিল।

ফিলিস্তিনের সংবাদপত্রে খবর প্রকাশিত হলেও সেখানকার প্রশাসনের তরফে কিছুই জানানো হয়নি। অন্যদিকে, এই বিষয়টিকে ভুয়া খবর বলে উড়িয়ে দিয়ে তীব্র কটাক্ষ করেছে ইসরাইলের সংবাদপত্রগুলি। প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরেই চলছে ইসরাইল-ফিলিস্তিন দ্বন্দ্ব। একাধিকবার আগ্রাসনের অভিযোগ উঠেছে ইসরাইলের বিরুদ্ধে। তবে আন্তর্জাতিক মহলে নিন্দার মুখে পড়েও নিজেদের অবস্থান থেকে সরতে রাজি নয় দেশটি। সূত্র: টাইমস নাউ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরাইল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ