Inqilab Logo

রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ০২ আষাঢ় ১৪৩১, ০৯ যিলহজ ১৪৪৫ হিজরী

ভালো ফলের আশায় বাস্কেটবল

জাহেদ খোকন : | প্রকাশের সময় : ১২ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

কোন পদক নয়, শুধুমাত্র ভালো ফলা-ফলের আশায় আসন্ন এশিয়ান গেমসে থ্রি অন থ্রি বাস্কেটবল ডিসিপ্লিনে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। এমনটাই জানালেন বাস্কেটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও এবারের এশিয়াডে বাংলাদেশ দলের ডেপুটি সেফ দ্য মিশন অভিজিৎ কুমার সরকার (একে সরকার)।
আগামী ১৮ আগষ্ট ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা ও পালেমবাং শহরে বসছে এশিয়ান গেমসের ১৮তম আসর। এশিয়ার বৃহত্তম এই ক্রীড়াযজ্ঞের পর্দা নামবে ২ সেপ্টেম্বর। এবারের এশিয়াডে বাংলাদেশের অংশ নেয়া ১৪টি ডিসিপ্লিনের লক্ষ্য ও সম্ভাবনা নিয়ে দৈনিক ইনকিলাবে ধারাবাহিক প্রতিবেদন ছাপা হচ্ছে। প্রতিবেদনের দশম কিস্তিতে আজ থাকছে বাস্কেটবল।
বাস্কেটবলে নতুন সংযোজন থ্রি অন থ্রি। আন্তর্জাতিক বাস্কেটবল ফেডারেশন (এফআইবিএ) তিন বছর আগে এ খেলার প্রচলন শুরু করে। সাধারণ বাস্কেটবলে কোর্টে পাঁচজন খেলে থাকেন। ডাগআউটে কোচসহ আরো সাতজন থাকেন। খেলা হয় ৪০ মিনিটের। খেলোয়াড় পরিবর্তনের কোন সংখ্যা নির্দিষ্ট থাকে না। কিন্তু থ্রি অন থ্রি বাস্কেটবল বেশ সংকুচিত। কোর্টে খেলেন তিনজন। পরিবর্তিত খেলোয়াড় হিসেবে ডাগআউটে বসতে পারেন মাত্র একজন। আর কোচের জায়গা হয় গ্যালারিতে। সরাসরি নয়, গ্যালারিতে বসেই কোচ ইশারায় নির্দেশনা দিয়ে থাকেন খেলোয়াড়দের। থ্রি অন থ্রি বাস্কেটবলের খেলা হয় মাত্র ১০ মিনিট।
ভিয়েতনামের ডানাংয়ে অনুষ্ঠিত বিচ গেমসেই আন্তর্জাতিকভাবে শুরু খেলাটির। যে ধারাবাহিকতায় এবারের এশিয়ান গেমসেও অন্তর্ভূক্ত হয় এ ডিসিপ্লিন। ফিবার সদস্য হিসেবে বাংলাদেশেও এর প্রশিক্ষণ শুরু করেন বাস্কেটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক। এরপর দেশ বিদেশের বিভিন্ন টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ থ্রি অন থ্রি বাস্কেটবল দল অংশ নেয়। ভিয়েতনামের বিচ গেমসেও খেলেছে লাল-সবুজরা। প্রথমবার আন্তর্জাতিক আসরে খেলতে গিয়েই চীনকে হারিয়ে চমক দেখিয়েছে তারা।
জাতীয় দিবস ও বিজয় দিবসবে হরহামেসাই থ্রি অন থ্রি বাস্কেটবলের আয়োজন করে থাকে ফেডারেশন। যার ফলে এশিয়ান গেমসের জন্য একটি শক্তিশালী দল গঠন করতে বেগ পেতে হয়নি তাদের। তাছাড়া ধানমন্ডিস্থ বাস্কেটবল জিমন্যাশিয়ামে প্রায় দেড় মাসের অনুশীলন করেছেন আটজন খেলোয়াড়। যার মধ্য থেকে নির্বাচিত হয়েছেন তারেক আজিজ, নাইমুর রহমান, সাইফুল ইসলাম ও মিঠুন কুমার বিশ্বাস। জাকার্তায় থ্রি অন থ্রি বাস্কেটবলের চারটি গ্রæপে ২০টি দেশ অংশ নেবে। ‘বি’ গ্রæপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ মঙ্গেলিয়া, কাজাখস্তান, দক্ষিণ কোরিয়া ও চাইনিজ তাইপে। এদের মধ্যে কোরিয়া ও চাইনিজ তাইপে খুবই শক্তিশালী।
এশিয়াডগামী দলের কোচ কাম ম্যানেজার ফজল রেহান বলেন, ‘ ছেলেদের প্রস্তুতি ভালো। তাই তারা ফাইট দিতে প্রস্তুত। সেরাটা দিয়ে খেলতে পারলেই ছেলেরা ভালো ফল আদায় করতে পারবে।’ তিনি যোগ করেন, ‘বাস্কেটবলে লম্বা খেলোয়াড় প্রয়োজন। যা রয়েছে অন্য দেশগুলোতে। এদিক দিয়ে আমরা কিছুটা পিছিয়ে। অসম্ভব দ্রæতগতির খেলা এটি। আমাদের ছেলেরাও ক্ষিপ্র গতির। গেমসে খেলতে পারলে তাদের মধ্যে আরো গতি বেড়ে যাবে বলেই আমার বিশ্বাস।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাস্কেটবল

১৯ ডিসেম্বর, ২০২১
১৩ ডিসেম্বর, ২০২১
৩০ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ