Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

নিরাপত্তার কমতি থাকায় কাশ্মীরে ‘ভারত জোড়ো’ যাত্রা বন্ধ রাহুল গান্ধীর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩, ২:৫৩ পিএম

প্রতিদিনের মতোই সঙ্গীদের নিয়ে ২০ কিলোমিটার পথ হাঁটার কথা ছিল রাহুল গান্ধীর। কিন্তু শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) কাশ্মীরে ভারত জোড়ো যাত্রার নিয়ম ভেঙে মাত্র এক কিলোমিটার গিয়েই থামতে হলো রাহুল গান্ধীকে।

কারণ হিসেবে ওয়ানড়ের সংসদ সদস্য জানিয়েছেন, রাহুলের নিরাপত্তার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করেনি সরকার। অত্যাধিক ভিড়ের কারণে নিরাপত্তার অভাব বোধ করেন রাহুল। তাই এদিনের মতো যাত্রা বন্ধ করে দেওয়া হয়। বিশেষ গাড়িতে করে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় রাহুলকে।
তবে কাশ্মীর পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বেশি জনসমাগম হবে বলে খবর ছিল না তাদের কাছে। তাই পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা যায়নি। তাছাড়া এদিনের যাত্রায় যোগ দিয়েছিলেন জম্মু কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহও।
সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাহুল বলেন, ভিড় সামলানোর জন্য যে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল, তারা উপস্থিত ছিল না। ফলে আমার নিরাপত্তারক্ষীরা চিন্তিত হয়ে পড়ে। তাই বাধ্য হয়ে আজকের মতো যাত্রা স্থগিত করতে হয়েছে। কারণ আমার নিরাপত্তারক্ষীদের কথা অমান্য করতে পারি না। জনতাকে সামলানোর দায়িত্ব স্থানীয় প্রশাসনের। কংগ্রেসে অভিযোগ, হাঠাৎ নিরাপত্তা কমিয়ে দিয়েছে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন।
দলের পক্ষ থেকে আরও জানা গেছে, প্রচণ্ড ভিড়ের চাপে প্রায় আধা ঘণ্টা একই জায়গায় আটকে ছিলেন রাহুল। পরে তাকে অন্য একটি গাড়িতে করে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।
কংগ্রেস নেতা কে সি বেণুগোপাল বলেছেন, আমরা বানিহাল টানেল থেকে বেরনোর পরেই আর পুলিশের দেখা পাওয়া যায়নি। কেন হঠাৎ নিরাপত্তা কমিয়ে দেওয়া হলো, প্রশাসনকে তার জবাব দিতে হবে। ভবিষ্যতে যেন এমন ঘটনা না ঘটে, তার জন্য উপযুক্ত পদক্ষেপ করতে হবে প্রশাসনকে। কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে কেন নিরাপত্তা বিঘ্নিত হলো, তার প্রতিবাদে সরব কংগ্রেস।
কাশ্মীরে প্রবেশের আগে ভারত জোড়ো যাত্রায় যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হয়েছিল কাশ্মীরের একাধিক রাজনৈতিক দলকে। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে শুক্রবার যাত্রায় অংশগ্রহণ করেন ওমর আবদুল্লাহ। রাহুলের মতোই শীতবস্ত্র ছাড়া হাঁটা শুরু করেন তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ