Inqilab Logo

রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৭ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

স্বস্তির বৃষ্টিতে সিক্ত দক্ষিণাঞ্চলে তাপমাত্রার পারদ নামল ৪ ডিগ্রীরও বেশী

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩১ মে, ২০২১, ৫:১৫ পিএম

দীর্ঘ প্রতিক্ষিত স্বস্তির বৃষ্টিতে সিক্ত হয়েছে দক্ষিণাঞ্চল। টানা পাঁচ মাসের অনাবৃষ্টির পরে সময় মতই দক্ষিন-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে সোমাবার সকাল থেকেই বরিশাল সহ দক্ষিণাঞ্চলে মাঝরীÑভারি বর্ষনে তাপমাত্রার পারদ নেমে গেছে আগের দিনের তুলনায় ৪ ডিগ্রীরও বেশী। দক্ষিণ-উপক’লের বেশীরভাগ স্থানেই সোমবার বৃষ্টি হয়েছে। দুপুর সোয়া ৩টায় সাগর পাড়ের কলাপাড়ার আকাশ ঘন কালো মেঘে ছেয়ে গেছে।

চলতি মে মাসে বরিশাল অঞ্চলে স্বাভাবিক ১৭৫ মিলেমিটরের স্থলে ৩০ মে পর্যন্ত বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় মাত্র ৫৯.২ মিলিমিটার। কিন্তু মাসের মেষ দিন সোমবার সকালের পর থেকেই দক্ষিণ উপক’লের আকাশ ভারি হতে শুরু করে। মকাল ১১টার পরেই হালকা থেকে মাঝারী বর্ষন শুরু হয় বরিশাল সহ দক্ষিণাঞ্চরের বেশীরভাগ এলাকায়। দুপুর ৩টা পর্যন্ত বরিশালে ৬৫.৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। বহু কাঙ্খিত এ বৃষ্টি দক্ষিণাঞ্চলে তাপমাত্রার পররদ অনেক নিচে নামিয়েছে। সোমবার বরিশালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার পারদ আগের দিনের ৩৫.৬ ডিগ্রী থেকে ৩২.৩ ডিগ্রী সেলসিয়াসে নেমে যায়।
টানা প্রায় পাঁচ মাসেরও বেশী সময় পরে বরিশাল অঞ্চলে একই সাথে এতটা বৃষ্টিপাত জনজীবনে যথেষ্ঠ স্বস্তি নিয়ে এসেছে। এমনকি দীর্ঘ প্রতিক্ষিত এ বৃষ্টি আউশ,পাট ও বিভিন্ন ধরনের সবজি সহ মাঠে থাকা সব ধরনের ফসরের জন্য যথেষ্ঠ ইতিবাচচক ফর দেবে বরে জানিয়েছেন কৃষিবীদগন।
বরিশাল অঞ্চলে গত জানুয়ারীতে স্বাভাবিক ৮.৯ মিলিমিটারের স্থলে কোন বৃষ্টি হয়নি। ফেব্রুয়ারীতে স্বাভাবিক ২৭ মিলিমিটারের স্থলে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি ঝড়েছে। আর মার্চে ৫৭.১ মিলিমিটারের স্থলে মাত্র ০.৩ মিলি বৃষ্টি হয়েছে। এমনকি এপ্রিলেও বরিশাল অঞ্চলে ১৩২.৩ মিলিমিটারের স্থলে বৃষ্টিপাতের পরিমান ছিল ৫ মিলিরও কম। আবহাওয়া বিভাগের মতে জানুয়ারীতে শতভাগ এবং ফেব্রুয়ারী থেকে এপ্রিল পর্যন্ত বরিশাল অঞ্চলে বৃষ্টিপাতের পরিমান ছিল স্বাভাবিকের প্রায় ৯৯% কম।
আর মে মাসে বরিশাল অঞ্চলে স্বাভাবিক ১৭৫ মিলিমিটারের স্থলে কিছুটা কম বৃষ্টিপাতের পূর্বভাস দেয়া হলেও মসের শেষ দিনের মাঝারিÑভারি বর্ষনের ফলে বৃস্টিপাতের পরিমান দাড়িয়েছে প্রায় ১২৫ মিলিমিটার। গত এপ্রিলে দক্ষিণাঞ্চলে দুদফায় কালবৈশাখী আঘাত হানলেও তার সাথে কোন বৃষ্টি হয়নি। গত ৭ মে তৃতীয় কালবৈশাখীর সাথে মাত্র ১১ মিলির মত বৃষ্টির পরে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে ভর করে ২৬ মে’র আগেপরে বৃষ্টি হয়েছে মাত্র ৩৯.১ মিলি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তাপমাত্রা

২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ