Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ এপ্রিল ২০২৪, ২৬ চৈত্র ১৪৩০, ২৯ রমজান ১৪৪৫ হিজরী

‘পদ্মা সেতু’র নাম বদল...

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ অক্টোবর, ২০২২, ১১:১৩ এএম | আপডেট : ১১:১৫ এএম, ৩১ অক্টোবর, ২০২২

‘পদ্মা সেতু’ এখন আর স্বপ্ন নয়। উত্তাল পদ্মার বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে নিজের অস্তিত্ব জানান দিচ্ছে। এমন দৃশ্য এদেশের মানুষকে আপ্লূত করে তুলেছিল, করেছিল উচ্ছ্বসিত। সেই উচ্ছ্বাস থেকেই নির্মাতা বড়ুয়া মনোজিত ধীমন নির্মাণ করেছিলেন ‘পদ্মা সেতু’ নামের একটি সিনেমা। কিন্তু সেন্সরের আপত্তির মুখে নাম বদল করা হচ্ছে ছবিটির।

এ প্রসঙ্গে ধীমান বলেন, ‘উপায় নেই। সেন্সর বোর্ডের সিদ্ধান্ত না মানলে ছবিটি ছাড়পত্র পাবে না। আমরা একটা ছবি নির্মাণ করি দর্শকের জন্য। দর্শক হলে গিয়ে ছবিটি দেখলে আমাদের পরিশ্রম সার্থক হয়। দর্শককে ছবিটি দেখানোর জন্যই সব মেনে নিচ্ছি।’

এ ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন অলিভিয়া মাইশা ও সাঞ্জু জন, হিমেল রাজ, খুকু, রায়হান মুজিব, আনোয়ার সিরাজী, শান্তা পাল, শাহিন, সাইফুল প্রমুখ।

ছাড়পত্রের জন্য ‘পদ্মা সেতু’ সেন্সরে জমা দেওয়া হয় চলতি বছরের জুলাই মাসের শুরুতে। বোর্ডের সদস্যরা সিনেমাটি দেখেন ২১ জুলাই। ছবিটি দেখলেও তারা ছাড়পত্র দিতে অক্ষমতা প্রকাশ করেন। এ বিষয়ে পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প কর্তৃপক্ষের মতামত নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা বোধ করেন তারা।

এরপর সেতু নির্মাণ প্রকল্প কর্তৃপক্ষ মনোনীত প্রতিনিধিবৃন্দ ৭ আগস্ট সিনেমাটি দেখে নিজেদের মতামত প্রকাশ করেন। পরে ১২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত সভায় তাদের মতামত উপস্থাপন করা হলে বোর্ড সভায় সদস্যগণ একমত পোষণ করেন। এসময় চলচ্চিত্রটির নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি কিছু কর্তন ও সংযোজনের নির্দেশ দেওয়া হয় সেন্সর থেকে।

সেন্সর বোর্ডের এই নির্দেশ একবাক্যে মেনে নিয়েছেন বড়ুয়া মনোজিত ধীমন। ‘পদ্মা সেতু’ নাম বদলে সিনেমাটির নাম রেখেছেন ‘পদ্মা পাড়ি’। এরইমধ্যে বোর্ডের নির্দেশ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় কাটাছেড়া শেষে ছাড়পত্রের জন্য জমা দিয়েছেন তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পদ্মা সেতু

১১ জানুয়ারি, ২০২৩
৩১ অক্টোবর, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ