Inqilab Logo

সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ যিলহজ ১৪৪৫ হিজরী

বরিশালে টেক্সটাইল শ্রমিকদের ঢাকা-বরিশার-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০২২, ৬:৫৯ পিএম

বরিশালের সোনারগাও টেক্সটাইল মিলের শ্রমিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাকাÑবরিশাল-পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে বিক্ষুব্ধ সহকর্মীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘন্টাকালের এ অবরোধ নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য পাওয়া গেছে।
শ্রমিক আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) বরিশাল জেলা সদস্য সচিব ডা. মনিষা চক্রবর্তী অভিযোগ করেছেন, সোনারগাও টেক্সটাইল মিলের মালিক ও তাদের গুন্ডা শ্রমিক বাহিনীর হামলায় দুই নারী সহ ৫ শ্রমিক আহত হয়ে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি বলেন, ঘটনায় জড়িতদের বিচার করা না হলে আন্দোলন সহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তবে সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলের উপ মহাব্যবস্থাপক খায়রুল আলম বলেন, সকালে ১০/১২ জন শ্রমিক প্রবেশ করার জন্য গেটে আসে। এ সময় একজন শ্রমিকের পূর্বের অনুপস্থিতি নিয়ে সমস্যা তৈরী হয়। তাকে ঢুকতে নিষেধ করায় অন্যরা প্রবেস করেনি। পরে তারা অটো চালক শ্রমিকদের খবর দেয়। বহিরাগত শ্রমিকরা গেট ভাঙ্গার চেষ্টার পাশাপাশি ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় ডিজিএম-এর ওপর হামলা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি । বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকদের হামলায় মিলের বেশকিছু ক্ষতি হয়েছে বলেও ডিজিএম অভিযোগ করেছেন।
এসময় নেতৃবৃন্দ শ্রমিকদের নিয়েল মহাসড়ক অবরোধ করে। এক পর্যায়ে মনীষা চক্রবর্তি প্রশাসনের লোকজনকে সাথে নিয়ে মিলের ভেতরে প্রবেশ করে। প্রশাসন পরিস্থিতি সামাল দিতে মিল কতৃপক্ষকে বিক্ষুব্ধদের দাবী মেনে নিতে বলে। এরপরে তাৎক্ষনিকভাবে ৬ জনকে মিল থেকে বের করে দেয়া হলে পরিস্থিতি শান্ত হরে দুপুর ৩টার দিকে ক মিলে উৎপাদন শুরু হয়। ইতোমধ্যে মহাসড়ক থেকেও অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়।
ডিজিএম আরো জানান, পরিস্থিতি শান্ত করতে ৬ জনকে তাৎক্ষনিক বের করে দেয়া হয়েছে। ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করা হবে। কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তি ব্যবস্থা নেয়া হবে।
শ্রমিক সিরাজ জানান, দুপুরে টেক্সটাইল মিলে যাওয়ার সময় পূর্বে অনুপস্থিত থাকায় একজনকে ভিতরে ঢুকতে বাঁধা দেয় গেটের নিরাপত্তা কর্মীরা। পরে অন্যান্য শ্রমিকরা এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে, মিলের ভিতরে মালিকদের নিজস্ব লোকজন হামলা করে। পরে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেন। কর্তৃপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেয়ার পর অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়েছে।
বিএমপি’র কোতয়ালী থানার ওসি আজিমুল করিম সাংবাদিকদের জানান, শ্রমিকদের অনুপস্থিতি নিয়ে একটা ঝামেলা হয়। এর ফলে কিছু শ্রমিক বিক্ষোভ করে এবং ঢাকা-বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে। পরে শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়ায় যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক আছে। ২৭-১০-২০২২.



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মহাসড়ক অবরোধ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ