Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

নব উদ্যোমে জেগে উঠেছে দেশের বক্সিং

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০২২, ১২:০১ এএম

বক্সিং মানুষের হৃদয়ে কিছু মুহূর্তের জন্ম দেয়। রাম্বল ইন দ্যা জঙ্গল ছিল তেমনই একটা প্রতিযোগিতা। বিশ্ব বক্সিয়ের দূত মোহাম্মদ আলী সেই ফাইটে কোন সুযোগ দেননি আরেক প্রথিতযশা বক্সার জর্জ ফোরম্যানকে। বিশ্ব বক্সিং থেকে চোখ ফেরানো যাক বাংলাদেশ রিংয়ে। গত জুলাইয়ের ২৯ তারিখে গ্রেট রাম্বল ইন দ্যা জঙ্গলের সঙ্গে মিল রেখে গুলিস্তানের ‘মোহাম্মদ আলী বক্সিং স্টেডিয়ামে’ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ‘রাম্বল ইন গুলিস্থান’ নামে একটি প্রো বক্সিং প্রতিযোগিতা। সেই আসরের ব্যাপক সফলতায়, আয়োজক বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশন এবং এক্সেল স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট ফের আয়োজন করলো রাম্বল ইন গুলিস্তান-২। গতকাল সন্ধ্যা পৌনে ৭টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মোহাম্মদ আলী বক্সিং স্টেডিয়ামে রমরমা দর্শকের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয় এ প্রতিযোগিতা। বক্সিংপ্রেমীদের জন্য ছিল ৪টি প্রদর্শনী ম্যাচ প্রতিযোগিতা মূলক ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে। তবে এবারের আয়োজনে বাড়তি উন্মাদনা এনে দেয় দুই নারী বক্সার সামীমা ও খুকুমণির ফাইটটি।

সাতটি ক্যাটাগরিতে মোট ১৪ জন বক্সার কাল প্রতিযোগিতার অগ্নি পরীক্ষায় অংশ নেন। বক্সিংয়ের চিরন্তন সত্য হচ্ছে, বক্সাররা রিংয়ে উঠেনই প্রতিপক্ষকে ট্যাকনিকাল নক আউট (টিএনও) করতে। এমনকি মোহাম্মদ আলী, ফোরম্যান থেকে শুরু করে মাইক টাইসনও চইতেন ফাইট শেষ হবার আগেই প্রতিপক্ষকে কুপেকাত করতে হেভি পাঞ্চের মাধ্যমে। রাম্বল ইন গুলিস্তান-২ এ যেমন বরিশালের রিজায়ুল মাহমুদ সাজিন ও রাজশাহীর জাহিদুল ইসলাম টিএনও করলেন তাদের প্রতিপক্ষদের। ফেদারওয়েটে বরিশালের সাজিন টিএনও করেন আর্যদ্বীপ চাকমাকে। অন্যদিকে ক্রুইসারওয়েটে রাজশাহীর জাহিদুলের পাঞ্চ হজম করতে না পেরে টিএনও হন মেহেদী হাসান। জাহিদুল সর্বশেষ জুলাই মাসের ফাইটেও জিতেছিলেন।
রাজশাহীর আবু তালহা হৃদয় ফেদারোয়েট ক্যাটাগরিতে মেজরিটি ডিসিশনে হারান ইমরান আলীকে। জুলাইয়ে সর্বশেষ প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচটিও জিতেছিলেন হৃদয়। রাজশাহীর আরেক প্রতিযোগি উৎসব আহমেদ সুপারবেন্টম ক্যাটাগতি হারান আমিনুল ইসলানকে। তবে উৎসবের জয় পেতে ঝড়াতে হয়েছে প্রচুর ঘাম। সম্ভবত গত রাতের সেরা ফাইট উপহার দিয়েছেন উৎসব ও আমিনুল। মজার তথ্য হচ্ছে রাম্বল ইন গুলিস্তানের প্রথম আসরে দুইজনই জিতেছিলেন। বেন্টমওয়েটে রাজশাহীর সাব্বির ইসলাম আনএনিমাস ডিসিশনে (৩-০) হারান মোহাম্মদ আকাশকে। ওয়েলটার ক্যাটাগরিতে ইউনুসকে পাত্তায় দিলেন না আল-আমিন। টিএনও করে আল-আমিন জিতে নেন ফাইট। তবে ম্যাচ শেষে ইউনুসের হাত উঁচিয়ে ধরে বড় মনের পরিচয় দিলেন আল-আমিন। ম্যাচশেষে আল-আমিন বলেন,‘আমি আসলে ইউনুসকে উৎসাহী করতে ওর হাত উঁচিয়ে ধরেছিলাম। সে একদমই নবীন। আশাকরি সামনের দিনে আমাদের বক্সিয়ের জন্য সে এক অমূল্য সম্পদে পরিণত হবে।’
তবে কালকের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ছিল শামীমা আক্তার ও সুমাইয়া সুলতানা খুকুমণিকে ঘিরে। বাংলাদেশ আনসারের এ দুই প্রতিযোগিই জাতীয় স্বর্ণজয়ী বক্সার। তবে গতরাতে শামীমা আনএনিমাস ডিসিশনে জিতলেন। শামীমা খেলা শেষে বলেন,‘ম্যাচ শুরুর আগে আমি আত্মবিশ্বাসী ছিলাম জেতার ব্যাপারে। সামনের দিনগুলোতে আমি এবং খুকুমণী বাংলাদেশের পতাকা উচিয়ে ধরতে চাই আন্তর্জাতিক আসরে। মজার ব্যাপার হচ্ছে আমাদের দুজনেরই এটা প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ফাইট।’ প্রতিযোগিতায় রাজশাহীর বক্সারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। বাংলাদেশ আনসারের সহযোগীতায় এই অঞ্চল থেকে উঠে আসছে প্রচুর বক্সার। আনসারের প্রশিক্ষক শফিউল আলম মাসুমের নিবিড় তত্ত্বাবধানে একঝাক বক্সার উঠে আসছে রাজশাহী থেকে।
রাম্বল ইন গুলিস্তানের জুলাই মাসের প্রথম আসরে বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের সভাপতি আদনান হারুন বলেছিলেন, ‘আমি বক্সিং উন্নয়নে মনোযোগ দিতে চাই।’ বাংলাদেশের আত্মসামাজিক প্রেক্ষাপটে এবারের আসরে নারী বিভাগে বক্সিয়ের একটা ম্যাচ হওয়া তারই প্রতিফলন। আগের আসরের তুলনায় রাম্বল ইন গুলিস্তান-২ এর খেলা দেখতে দর্শকের উপস্থিতি ছিল ঢের বেশি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নব উদ্যোমে জেগে উঠেছে দেশের বক্সিং
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ