Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরী

রাজশাহীতে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মানবপাচার ট্রাইব্যুনালে মামলা

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২৩, ৮:১০ পিএম

রাজশাহীতে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নামে টাকা হাতিয়ে পরে আদম ব্যাপারীর মাধ্যমে বিদেশ পাঠিয়ে প্রতারণার অভিযোগে এক পুলিশ সদস্যসহ দুজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) রাজশাহীর মানবপাচার ট্রাইব্যুনালে এ মামলা করেন ভুক্তভোগী আবু তালেব মুন্না।
এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী আব্দুস সবুর খান। ভুক্তভোগী আবু তালেব রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার সরদহ মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।
অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যের নাম আব্দুল করিম। তিনি সরদহে বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে কর্মরত। চাঁপাইনবাবগঞ্জের বারোঘোরিয়া এলাকায় তাঁর বাড়ি। অপরজন হলেন পুলিশ সদস্য আব্দুল করিমের সহযোগী মমিন আলী। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহারাজপুরের বাসিন্দা।
বাদীপক্ষের আইনজীবী বলেন, ‘২০২০ সালে কারারক্ষী পদে নিয়োগের প্রলোভন দেখিয়ে আবু তালেবের কাছ থেকে ১৪ লাখ টাকা নেন পুলিশ সদস্য আব্দুল করিম। তবে তিনি চাকরি পাইয়ে দিতে পারেননি। পরে টাকা ফেরত চাইলে তিনি কৌশলে আদম ব্যাপারীর মাধ্যমে আবু তালেবকে দুবাই পাঠিয়ে দেন।’
তিনি আরও বলেন, ‘গত বছরের নভেম্বর মাসে দুবাইয়ে গিয়ে আবু তালেব পড়েন মমিন আলীর খপ্পরে। তাঁকে সেখানে আটকে রাখা হয়। টানা ৩৮ দিন বন্দী থাকার পর আরও ৫ লাখ টাকা দিয়ে মেলে মুক্তি। এরপর গত ৩০ ডিসেম্বর তিনি দেশে ফিরে আসেন। এরপর তিনি আদালতের দ্বারস্থ হন।’
আইনজীবী আব্দুস সবুর বলেন, ‘আদালত আবু তালেবের অভিযোগ আমলে নিয়েছেন। মামলাটি তদন্তের জন্য চারঘাট থানা-পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।’
অভিযোগের বিষয়ে জানতে পুলিশ একাডেমিতে কর্মরত আব্দুল করিমের সঙ্গে কোনোভাবেই যোগাযোগ করা যায় নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ট্রাইব্যুনালে মামলা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ