Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৯ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

বাচসাস-এর সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঃ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত অনুমোদন

বিনোদন রিপোর্ট: | প্রকাশের সময় : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

চলচ্চিত্র সাংবাদিকদের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস)-এর এক সাধারণ সভা গত শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রবীণ সদস্য সৈয়দ মাহমুদ শফিক। সভা পরিচালনা করেন সিনিয়র সদস্য লিটন এরশাদ ও এডহক কমিটির সদস্যসচিব কামরুল হাসান দর্পণ। সাধারণ সভায় প্রায় আড়াই শতাধিক সদস্য অংশগ্রহণ করেন। সভায় সদস্যদের উপস্থিতিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, আগামী ৯ সেপ্টেম্বর বাচসাস-এর নামে কতিপয় সদস্য তথাকথিত যে সাধারণ সভার ঘোষণা করেছে, তা অবৈধ বলে ঘোষণা দিয়েছে। বাচসাসের ঐক্য বিনষ্ট করার এহেন অপতৎপরতা সম্পর্কে উপস্থিত সদস্যরা তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তারা সিদ্ধান্ত দেন, পরবর্তীতে বাচসাসের নামে কেউ কোনও কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার চেষ্টা করলে সেটি অবৈধ বলে গণ্য হবে। সাধারণ সভায় বাচসাস পরিচালনা নীতিমালায় দুটি প্রস্তাব সংযোজন করাসহ অন্যান্য কিছু প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য উত্থাপন করা হয়। প্রস্তাব দুটি হচ্ছে, ১. বিশেষ সাধারণ সভা, ২. এডহক কমিটি গঠন। এছাড়া সাধারণ সভায় ৭ মার্চ ২০২২ তারিখে অনুষ্ঠিত ‘বিশেষ সাধারণ সভা’য় মেয়াদোত্তীর্ণ ২০১৯-২০২১ মেয়াদের কমিটি সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যর মতামতের ভিত্তিতে বিলুপ্ত করার পাশাপাশি সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবুর অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে হাজতবাস ও ৫০ টাকা জরিমানা দেয়ায় বাচসাস-এর নীতিমালার ৬-এর ‘ক’ ধারা অনুযায়ী সংগঠনের মর্যাদা, সুনাম, স্বার্থ, লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য পরিপন্থী হওয়ায় তার সদস্যপদ স্থায়ীভাবে বাতিল করার প্রস্তাব করা হয়। একই সঙ্গে সংগঠনের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন অসাংগঠনিক আচরণ ও কার্যক্রমের জন্য ফাল্গুনী হামিদের সদস্যপদ স্থায়ীভাবে বাতিলের প্রস্তাব করা হয়। সাধারণ সভায় বিলুপ্ত কমিটি কর্তৃক বাচসাস-এর দুইবারের সভাপতি ও অন্যতম সিনিয়র সদস্য আবদুর রহমান, দুইবারের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল করিম নিশান, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক হামিদ মোহাম্মদ জসিম এবং অর্থ স¤পাদক নবীন হোসেনের সদস্যপদ বাতিলের যে সিদ্ধান্ত নেয়, তা পুনর্বহালের সিদ্ধান্তের প্রস্তাব করা হয়। বিশেষ সাধারণ সভায় এডহক কমিটির গত ৬ মাসে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনাসহ অন্যান্য কার্যক্রমের আর্থিক হিসাব উত্থাপন করা হয়। মেয়াদোত্তীর্ণ ও বিগত কমিটির অর্থ সম্পাদক মঈন আব্দুল্লাহর কাছে এডহক কমিটির পক্ষ থেকে তাদের মেয়াদকালের সংগঠনের যাবতীয় হিসাব বুঝিয়ে দেয়ার জন্য মৌখিকভাবে অনুরোধ করা হলে তিনি তা দিতে অস্বীকৃতি জানান। এ ব্যাপারে নতুন নির্বাচিত কমিটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিলুপ্ত কমিটির সাবেক সভাপতি ফাল্গুনী হামিদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবু ও অর্থ সম্পাদক মঈন আব্দুল্লাহর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তাব করা হয়। এসব প্রস্তাবনা এডহক কমিটির সদস্য সচিব কামরুল হাসান দর্পণ সাধারণ সভায় উত্থাপন করেন। সভার সভাপতি সৈয়দ মাহমুদ শফিক প্রস্তাবনা পাস করার ব্যাপারে সদস্যদের সম্মতি জ্ঞাপনের আহ্বান জানালে সর্বসম্মতিতে প্রস্তাবগুলো পাস করা হয়।
বাচসাসের পরিচালনা নীতিমালা লঙ্ঘন করে বৈধ নির্বাচন কমিশনকে উপেক্ষা করে মেয়াদোত্তীর্ণ ও বিশেষ সাধারণ সাভায় বিলুপ্ত কমিটির একাংশ স্বেচ্ছাচারি মনোভাব দেখিয়ে পরিচালনা নীতিমালা পরিপন্থী নতুন নির্বাচন কমিশন করে বিনাভোটে তথাকথিত একটি কমিটি গঠন করাকে অবৈধ হিসেবে আখ্যায়িত করে তা বাতিল করার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সেই সঙ্গে এই ধরনের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া এবং তাদের সদস্য পদ স্থগিত করা হয়। এছাড়া বাচসাসের বিপুলসংখ্যক সদস্যর সদস্যপদ বাতিল করা নিয়ে বিগত কার্যনির্বাহী কমিটি পরিচালনা নীতিমালা পরিপন্থী যে ‘রিভিউ কমিটি’ গঠন করে এবং এ কমিটির যারা সদস্য তাদের সদস্যপদ বাতিল করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পরিচালনা নীতিমালা পরিপন্থী এহেন অপকর্মের ব্যাপারে নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত নির্বাচিত নতুন কমিটি প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সাধারণ সভায় নির্বাচন কমিশনের পক্ষে নির্বাচন কমিশনার এরফানুল হক নাহিদ যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানে বিগত ও বিলুপ্ত কমিটির কাছ থেকে কোনো ধরনের সহায়তা না পাওয়াসহ তাদের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরেন। সাধারণ সদস্যরা বিগত ও বিলুপ্ত কমিটির এহেন আচরণে ক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন।
সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখেন আবদুর রহমান, হাসান হাফিজ, শামসুদ্দিন আহমেদ চারু, সলিমুল্লাহ সেলিম, মমিন রহমান, ডিইউজের সাধারণ স¤পাদক আখতার হোসেন, নাসিম রুমি, রাজু আলীম, খান অখতার হোসেনসহ অন্যান্য সদস্য। এছাড়া বক্তব্য রাখেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ফরিদ বাশার, নির্বাচন কমিশনার আবুল হোসেন মজুমদার, বাদল আহমেদ, রিমন মাহফুজ, এডহক কমিটির আহ্বায়ক হাবিবুল হুদা পিটু। সদস্য সচিব কামরুল হাসান দর্পণ এডহক কমিটির পক্ষ থেকে প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন এবং তা সর্বসম্মতিতে অনুমোদিত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাচসাস-এর সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঃ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত অনুমোদন
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ