Inqilab Logo

শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১, ০৬ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

চুরির অভিযোগে গৃহপরিচারিকাকে নির্যাতন, সিগারেটের ছ্যাঁকা

প্রকাশের সময় : ১৫ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে
ঢাকার সাভারে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে এক গৃহপরিচালিকাকে ঘরে আটকে রেখে নির্যাতন ও হাতে সিগারেটের আগুন দিয়ে ছ্যাঁকা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাতে সাভার পৌর এলাকার নামাগেন্ডা পশ্চিমপাড়া মহল্লায় দারোগ আলীর বাড়ির ভাড়াটিয়া মুদি দোকানী বাচ্চু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে আহত গৃহপরিচারিকা রিনা বেগমকে (৩৮)  উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। খবর পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহতের সাথে কথা বলেন। রিনা কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী থানার আড়োয়াপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল মতিন মিয়ার স্ত্রী। সন্তানদের নিয়ে তিনি নামাগেন্ডা এলাকার জসিম এর বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে থেকে গৃহপরিচারিকার কাজ করেন। সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাকারিয়া হোসেন বলেন, টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে রিনা বেগম নামের এক গৃহপরিচারিকাকে আটকে রেখে মারধর করেছে এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। পরে গৃহপরিচারিকা রিনার সাথে কথা বলে তাদেরকে থানায় অভিযোগ দিতে বলেছি। রিনা বেগমের ছেলে জীবন মিয়া জানায়, তার মা মুদি দোকানী বাচ্চু মিয়ার বাসায় কাজ করে। গত বুধবার বাচ্চু মিয়ার ঘর থেকে ১২ হাজার টাকা হারিয়ে যায়। ওই টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে রাতে ঘর থেকে তার মাকে ধরে নিয়ে আটকে রেখে বাচ্চু মিয়া তার বন্ধু মোকছেদ ও বাড়ির মালিক দারোগ আলী লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এমনকি হাতে সিকারেটের ছ্যাঁকা দিয়ে টাকা নেয়ার কথা স্বীকার করানোর চেষ্টা করে। পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চলে যায়। সে আরো জানায়, পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে বাচ্চু মিয়া দোকানে তালা লাগিয়ে পালিয়ে যায়। অভিযুক্ত বাড়িওয়ালা দারোগ আলী নির্যাতনের কথা স্বীকার করে বলেন, টাকা চুরি করেছে। স্বীকার করছে না, তাই পিটিয়ে স্বীকার করানোর চেষ্টা করেছি। এতে দোষের কিছু নেই। নির্যাতিতার ছেলের অভিযোগ, পুলিশ অভিযুক্তদের কাছ থেকে টাকা-পয়সা নিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ কর্মকর্তা জাকারিয়া হোসেন বলেন, বিকালের মধ্যে ওই নির্যাতিত পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দিবে। অভিযোগ দিলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চুরির অভিযোগে গৃহপরিচারিকাকে নির্যাতন
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ