Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার , ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৩ আশ্বিন ১৪৩০, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫ হিজরী

মাগুরায় মামলা প্রত্যাহার ও মুক্তির দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, মাগুরা থেকে | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০২৩, ১২:০১ এএম

মাগুরার মহম্মদপুরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় আটক তানভির রহমান রাজুর (৩৫) মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মাগুরার মহম্মদপুর সদরে এলাকাবাসী গতকাল রোববার সকালে মানববন্ধন করেছে। পরে উপস্থিত এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামানন্দ পালের কাছে স্মারকলিপি দেয়। অভিযুক্ত যুবক তানভির রহমান রাজু পেশায় ইটভাটা ব্যবসায়ি। তিনি মহম্মদপুর উপজেলা সদরের জাঙ্গালিয়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেন মোল্যার ছেলে। মামলা সূত্রে জানা গেছে, তানভির রহমান রাজুর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেছেন মহম্মদপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের মহিলা বিষয়ক সস্পাদক মোছা. বেবী নাজনীন। রাজু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বেবী নাজনীনের বিরুদ্ধে মানহানিকর তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেছেন বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। গত ৩ মার্চ রাতে মহম্মদপুর থানায় একজনের নামে ও অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে মামলাটি করা হয়। পুলিশ রাজুকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করলে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। অভিযুক্ত রাজুর বাবা মহম্মদপুর সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। রাজুর বড় ভাই মো. কামরুল হাসান উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও স্থানীয় সাংবাদিক। মামলার বাদি মোছা. বেবী নাজনীন বলেন, আসামি রাজু ফেসবুকে দীর্ঘদিন ধরে আমার বিরুদ্ধে মানহানিকর লেখা উপস্থাপন করে আসছে। রাজুকে নিবৃত করতে সামাজিক ও পারিবারিকভাবে বহুবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে মামলা করতে বাধ্য হয়েছি।
মহম্মদপুর থানার ওসি অসিত কুমার রায় মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ